Saturday, November 17, 2018
Login
Username
Password
  সদস্য না হলে... Registration করুন
চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রার্থী,সমর্থকদের নির্বাচনী প্রচারণা সামগ্রী অপসারন অব্যহত                 নরসিংদী-৫ আসনে এমপি হতে চায় প্রবাসি সাংবাদিক জুয়েল                 প্রতিটি রুগীই আপনার পরিবার-কলারোয়ায় স্বাস্থ্যসেবা সেমিনারে-ওসি মারুফ আহমেদ                 সাদুল্লাপুরে কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের বার্ষিক সাধারণ সভা                  বরগুনায় ৪ দিন ব্যাপী জাতীয় আয়কর মেলার উদ্বোধন                 টংগিবাড়ী আব্দুল্লাপুর ইউনিয়নের পাইকপাড়ায় আঃ হালিম মুন্সীর কুলখানি অনুষ্ঠিত                  চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২২০ বোতল ফেনসিডিলসহ গ্রেপ্তার ৪                 চতুর্থ দিন আয়কর সংগ্রহ হয়েছে ২৫৩ কোটি ১৫ লক্ষ ৮১ হাজার ৫৪০ টাকা                 বেবী নাজনীনকে আটকের পর ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ,নিপুন গ্রেপ্তার                  চাঁপাইনবাবগঞ্জে হত্যা মামলার দুই আসামী গ্রেপ্তার                 পাইকগাছায় সাবেক ছাত্রলীগ ফোরামের র‌্যালী ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত                 পাইকগাছায় গ্রাম আদালত শীর্ষক অবহিতকরণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত                 চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠক                  সাংবাদিক আল আমিন টিটুর পিতা আব্দুল সাত্তার আর নেই                 যশোরে পর্যটকবাহী বাসের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে একজন নিহত, ১৫ জন আহত                 দিঘলিয়ার উত্তর হাজীগ্রাম এলাকাবাসীর উদ্যোগে ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত                 দশ দিনেও উদ্ধার হয়নি ভৈরব নদে ডুবে যাওয়া সার বোঝাই এম ভি মির্জাগঞ্জ                  শরীয়তপুরে ঐতিহ্যবাহী নবান্ন উৎসব পালিত                 চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১২০ বোতল ফেনসিডিলসহ গ্রেপ্তার ২                 বগুড়া-২ আসনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন এ্যাডঃ ময়নুল ইসলাম                 জোর করে একজন রোহিঙ্গাকেও রাখাইনে ফেরত পাঠানো হবে না                 চাঁপাইনবাবগঞ্জে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ                 নড়াইলে উদ্বোধন হল ৪দিনব্যাপি আয়কর মেলা                 আমি চাই না বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে কোন হানাহানি থাকুক                 চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৩টি আসনে নৌকার হাল ধরতে চান ৪৫ জন                 ফুলবাড়ী থানা পুলিশের অভিযানে ৫’শ বোতল ফেন্সিডির উদ্ধার।                 চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৪ দিন ব্যাপী আয়কর মেলা উদ্বোধন                 রাণীনগরে গাছিরা খেঁজুর রস থেকে গুড় তৈরিতে ব্যস্ত                  আজ শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন                 নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে পুলিশের উপর হামলা: ৩ মামলায় গ্রেপ্তার ৪০                 ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে সড়ক দূর্ঘটনায় যুবক নিহত                 যশোর আদালতে কোর্টের এস আই শফিকুল ইসলাম শফিকের বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযোগ।                 সিংড়া প্রেসক্লাবের নব-নির্বাচিত কমিটির সাথে ইউএনও মহোদয়ের মতবিনিময়                 সিংড়ায় বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত                 চাঁপাইনবাবগঞ্জে ফাঁস দিয়ে বৃদ্ধের আত্মহত্যা                 সাদুল্লাপুরে ইউনিয়ন উন্নয়ন সমন্বয় কমিটি বিষয়ক প্রশিক্ষণ                  সাবেক এমপি অধ্যক্ষ শাহাদুজ্জামানের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ                 মৌলভীবাজারের যোগদান করলেন এএসপি মাহমুদুল হাসান                 চাঁপাইনবাবগঞ্জে ভোক্তা অফিসের অভিযানে ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা                  খানজাহান আলী থানা স্বেচ্ছাসেবকলীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী এবং জয়ের প্রতিকৃতি প্রতিস্থাপন                 চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রাক থেকে বিদেশী পিস্তল,গুলি,৫০৬ বোতল ফেনসিডিলসহ গ্রেপ্তার ২                 নওগাঁয় ৪ দিন ব্যাপী আয়কর মেলার শুভ উদ্বোধন                 ফুলবাড়ীতে ভায়াবহ অগ্নিকান্ডে ২০ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই                 নরসিংদীর ৫টি আসনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী ৩৯ জন                 কেসিসি-যোগিপোল এবং গিলাতলা জাতিয় পার্টির যৌথ প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত                 চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৬ মামলার আসামী জামায়াত নেতা ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার                 আয়কর মেলার দ্বিতীয় দিনেও ছিল করদাতাদের উপচে পড়া ভিড়: আয়কর সংগ্রহ ৫৫১ কোটি টাকা                  চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত                 নরসিংদীতে ধর্ষণের শিকার শিশু চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা                 মৌলভীবাজারে চিরকুট-সহ তরুনীর মৃতদেহ উদ্ধার                 নরসিংদীর পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুনের নাটোরে বদলি                  শিবগঞ্জে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন’র) ১৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত                 রাণীনগরে তুলা বোঝাই ট্রাকে আগুন                  উদ্দীপন ফুলবাড়ীগেট শাখাসহ ৪টি শাখা কার্যালয়ের শুভ উদ্বোধন                 চাঁপাইনবাবগঞ্জে র‌্যাবের হাতে মাদকসহ গ্রেপ্তার ২০                 নওগাঁয় অসাধু সুদ খোরদের চাপে ৪ জনের আত্মহত্যা, এলাকা ছাড়া ৯পরিবার, ভারতে গেছে ২ পরিবার                 নওগাঁর রাণীনগরের সানজিদা আক্তার বাড়ির পরিত্যাক্ত জমিতে সবজি চাষ করে স্বাবলম্বী                  চাঁপাইনবাবগঞ্জে সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত                 ফুলবাড়ীতে বেড়েছে শীত, কমেছে সবজির দাম                 বরগুনায় সরকারী জমির বাসা বাড়িতে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ অনুমোদনের অভিযোগ                 গ্রামাঞ্চলে কুমড়া বড়ি তৈরীতে ব্যস্ত নারীরা                  চাঁপাইনবাবগঞ্জ সোনামসজিদ স্থলবন্দর ও রহনপুর রেলবন্দর পরিদর্শন করলেন নেপালের রাষ্ট্রদুত                 জেইউজে’র নবনির্বাচিত কমিটিকে অভিনন্দন                 আয়কর মেলার প্রথম দিন করদাতা-সেবাগ্রহীতাদের স্বতঃর্স্ফূত সাড়াঃআয়কর সংগ্রহ ২১৮ কোটি টাকা                 

দেশের সংবাদ


হারিয়ে যেতে বসেছে গৃহবধুদের সাধের ‌‌‌‌‌‌ঢেঁকি
তোফায়েল হোসেন জাকির, গাইবান্ধা: :
সময় : 2018-11-09 22:36:55

চিরায়ত বাংলার হারিয়ে যাওয়া সেই ইতিহাস ঐতিহ্যেরই একটি অংশ হচ্ছে আমাদের অতীতের বহুল ব্যবহৃত নিত্য প্রয়োজনীয় সমাজ সংস্কৃতির অংশ অধুনালুপ্ত ‘‘ঢেকি’’ শিল্প।

আগেকার যুগে গাইবান্ধা জেলার  প্রায় প্রত্যেকটি বাড়িতেই ধান বানার জন্য ঢেঁকি থাকতো। জেলায় বর্তমানে নিতান্ত অজো পাড়া গায়ের কোথাও কোথাও হয়ত ঢেঁকি থাকতেও পারে, তবে এসবের ব্যবহার প্রায় বিলুপ্তই বলা চলে। ঢেঁকি ছাটা চাউলের কদর এখনও কমেনি কারণ এ চাউলের ভাতের মজাই আলাদা। ঢেঁকি ছাটা চাউলের উপরের আবরণ বা খোসা অন্নু থাকে যাতে প্রচুর পরিমান ভিটামিন রয়েছে।

গাইবান্ধার ঢেঁকি শিল্প বাংলার  প্রাচীন গ্রামীণ ঐতিহ্যের একটি গুরুত্বপুর্ণ অংশ। এক সময়    গ্রাম গঞ্জসহ সর্বত্র ধান ভাঙ্গা, চাল তৈরি, গুড়ি কোটা, চিড়া তৈরি, মশলাপাতি ভাঙ্গানোসহ বিভিন্ন কাজের জন্য ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হত চিরচেনা ঐতিহ্যবাহী ঢেঁকি। তখন এটা  গ্রামীণ জীবন ও সংস্কৃতির সাথে জড়িত ছিল ওঁৎপ্রোতভাবে। অনেকে কুটির শিল্প তথা পেশা হিসেবেও ঢেঁকিতে ধান বানতেন। ঢেঁকি চালাতে সাধারণত দুজন লোকের প্রয়োজন হয়। এক্ষেত্রে মহিলারাই চালাতেন তাদের সাধের ঢেঁকি। একজন ছিয়া সংযুক্ত যা বড় কাটের সাথে লাগানো থাকে তার এক প্রান্তে উঠে যার পাশে হাত দিয়ে ধরার নির্দিষ্ট খুটি ও লটকন থাকে সর্বশক্তি প্রয়োগ করে পা দিয়ে চাপ দিতে হয় আবার ছাড়তে হয়।

অপরজন নির্দিষ্ট গর্তে যেখানে ছিয়ার আঘাতে চাল থেকে ধান বের হয় সেখানে সতর্কতার সাথে ধান দিতে হয় আবার প্রতি আঘাতের পর পর ধান নাড়াচড়া করে উল্টে পাল্টে দিতে হয় যাতে সবগুলোতে আঘাত লাগে। শেষ হলে বা গর্ত পরিপূর্ণ হয়ে গেলে এগুলো তুলে আবার নতুন ধান দিতে হয়। আবার ধান ভাঙ্গা ও চিরাকুটার বিভিন্ন প্রবচনও বিভিন্ন জায়গায় শুনা যেত যেমন ‘‘চিরা কুটি, বারা বানি, হতিনে করইন কানাকানি, জামাই আইলে ধরইন বেশ, হড়ির জ্বালায় পরান শেষ’’।

আমাদের দেশে সত্তরের দশকে সর্বপ্রথম রাইসমিল বা যান্ত্রিক ধান থেকে চাল বের করার কল বা মেশিন এর আবির্ভাব হয়। তখন থেকেই ঢেঁকির প্রয়োজনীয়তা ক্রমান্বয়ে হ্রাস পেতে থাকে। এক সময় সারা দেশে বার মাসে তের পার্বণ পালিত হত। গ্রামে গঞ্জে একটার পর একটা উৎসব লেগেই থাকত। হেমন্ত উৎসব, পৌষ পার্বণ, বসন্ত উৎসব, নববর্ষ, বিবাহ উৎসব, কনের বাড়ীতে আম কাঠলী প্রদানের সময় হাতের তৈরী রুটি পিঠা তৈরির উৎসব, হিন্দুদের পূজা, মেলা সহ হরেক রকমের অনুষ্ঠানের আয়োজন হত বা এখনও হচ্ছে। এসব উৎসবে পিঠা পায়েস সন্দেস ইত্যাদি তৈরির ধুম পড়ে যেত। আর এসব তৈরীর মূল উপকরণ হচ্ছে চালের গুড়ি। চালের গুড়ি তৈরীর জন্য অতীতে ঢেকি বা গাইল ছিয়ার আশ্রয় নেয়া হত। ঈদ বা উৎসবের সময় ঘনীভুত হয়ে এলে প্রত্যেক বাড়ীতেই ঢেঁকি ও গাইল ছিয়ার ছন্দময় শব্দ শুনেই আন্দাজ করা যেত ঈদ বা উৎসব এসেছে।

 গ্রাম বাংলার সৌখিন মহিলারা চালের গুড়ি দিয়ে চই পিঠা, চিতল পিঠা, তেল পিঠ্, সিদ্ধ পিঠা, ঢুপি পিঠা, রুটি পিঠা, ঝুরি পিঠা, চুঙ্গা পিঠা, তালের পিঠা, পাড়া পিঠা, পাটি বলা, হান্দেস, নুনগরা-গড়গড়া পিঠাসহ তৈরী করতেন হরেক রকমের পিঠা। কিন্তু বর্তমান আধুনিক এ যান্ত্রিক যুগে বিভিন্ন অনুষ্ঠান উৎসবে আর অতীতের মতো জৌলুস নেই। উৎসবগুলো আজকাল একমাত্র  প্রথা বা রেওয়াজ হয়ে দাড়িয়েছে।

একটা সময় ছিল বড় গৃহস্থ বা কৃষকের ঘরে অবসর সময়ে বা রাতের অধিকাংশ সময়ই ঢেকিতে বা গাইল ছিয়ার মাধ্যমে ধান বানার কাজ করতে হতো। ধান বানতে বানতে অনেক মহিলার হাতে ফুসকা পড়ে যেত। এভাবে ফুসকা পড়তে পড়তে হাতে কড় পড়েও যেত। গরীব মহিলারা বা গৃহ পরিচারিকারা এক আধসের চাল বা ধান পারিশ্রমিকের মাধ্যমে কেহবা শুধু পেটপুরে খাবার বিনিময়ে ধনীদের ঘরে চাল কুটার কাজে নিয়োজিত থাকতো। যে গৃহস্থ যতো বেশি ধান বা চাল উৎপাদন করে বিক্রয় করতে পারতেন তিনিই এলাকায় ততো বড়ো ধনী হিসেবেই খ্যাতি অর্জন করতেন। তাই বড়ো বড়ো গৃহস্থের বাড়ীতে ঢেকিতে চালা বানার আওয়াজ তথা ঢেকুর ঢেকুর শব্দ শুনা যেত হরদম।

কালের বিবর্তনে হারিয়ে যেতে বসেছে ঢেঁকির ছন্দময় শব্দ। এখন শুধু চাল নয় মশলাপাতিও মেশিনের মাধ্যমে কুটানো হয়। মহিলাদের আরামের পরিধি বেড়েছে, বেড়েছে আধুনিকতা ও আধুনিক যান্ত্রিক জীবন যাপন। গ্রামের দু এক বাড়ীতে ঢেঁকি ও গাইল ছিয়ার অস্তিত্ব থাকলেও এর ব্যবহার নেই বললেই চলে। অমাদের পরবর্তী প্রজন্ম হয়তো যাদুঘরে গিয়ে জানতে হবে ঢেঁকি কী এবং এর মাধ্যমে কোন ধরনের কাজ করা হতো।

সকল মন্তব্য

মন্তব্য দিতে চান তাহলে Login করুন, সদস্য না হলে Registration করুন।

সকালের আলো

Sokaler Alo

সম্পাদক ও প্রকাশক : এস এম আজাদ হোসেন

নির্বাহী সম্পাদক : সৈয়দা আফসানা আশা

সকালের আলো মিডিয়া ও কমিউনিকেশন্স কর্তৃক

৮/৪-এ, তোপখানা রোড, সেগুনবাগিচা, ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত

মোবাইলঃ ০১৫৫২৫৪১২৮৮ । ০১৭১৬৪৯৩০৮৯ ইমেইলঃ newssokaleralo@gmail.com

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত

Developed by IT-SokalerAlo     hit counters Flag Counter